Sad Shayari in Bengali for girlfriend crying alone for you

বন্ধুরা আজ নিয়ে চলে এসছি সেরা কিছু প্রেমে হৃদয় ভাঙা Sad Shayari in Bengali ,bengali sad shayari photo,এগুলি আপনার সঙ্গিকে পাঠিয়ে কান্দিয়ে দিন তাকে।

Best Sad Shayari in Bengali for girlfriend

   কাঁদি না আমি আর ,

ভাবি না তোমার কথা।

হারিয়ে গেছো তুমি ,

খুঁজি না তোমাকে আর।

দাঁড়াই না আমি আর তোমার জন্য পদ্মা নদীর তীরে,

তোমার বলা রুপক কথা কাঁদিয়েছে বারে বারে।

তোমাকে আজ ভুলে গেছি আমি ,

তোমাকে চাই না আর।

বন্ধু নিয়ে সুখী আছি আমি,

আমি আজ সবার।

Kandi na aami arr

vabi na tomar kotha.

hariye gecho tumi

khunji na tomake arr.

darain naa ami arr tomar jonno padma nodir tire.

Tomar bola rupak kotha kandiyeche bare bare.

tomake ajj vule gechi aami tomake chai na arr.

bondhu niye shukhe achi aami

ami ajj sobar.

সুখের পায়রা তুই যে ছিলি

দুঃখের দিনে কই?

আমার দানা ফুরায়ে যেতেই ,

তুই আজ আর নাই!

আমার অবস্থা বড়ই জটিল

আমি আজ অসহায়।

আমার বৈরাগী বেশ দেখে 

তোর নাকি হাঁসি পায়।

ভুলে যাস না এক কালে

মালিক ছিলাম তোর।

জ্বালা যন্ত্রণা কাটায়ে ,

আবার আনবো ভোর।

হয়তো কখনো হারায়ে বাসা,

তুই হবি অশায়।

বৈরাগী হয়ে ঘুরবি তুই,

থাকবে না কোনো উপায়।

তখনই তুই খোলা পাবি,

আমার দরজা খানি।

নিরবে নিরবে কাঁদবি সেদিন,

আমি ভালো করে জানি।

Shukher payra tui j chhili

dukher dine koi?

Aamar dana furaye jetei,

tui aaj ar nai!!

Aamar abastha boroi jotil,

Aami ajj oshohay.

aamar boiragi besh dekhe,

tor naki hansi pay.

Vule jas na ek kale ,

malik chhilam tor.

Jwala jontrona kataye,

Aabar anbo vor.

Hoyeto kokhono haraye basa,

Tui hobi ashohaye.

Boiragi hoye ghurbi tui,

Thakbe na kono upay.

tokhoni tu khola pabi ,

aamar dorja khini.

Nirobe Noirobe kandbi sedin,

Aami valo kore jani.

যাদের তুমি কাছের ভাবো, তাদের কাছেই শোনা
গোল টেবিলের বৃত্তে, তোমার গভীর সমালোচনা।।

” আমার ভালোবাসা বা প্রেম সংক্রান্ত
কোনো স্মৃতি নেই,
যাকে প্রেম বা ভালোবাসা বলা যায়।

জীবন কঠিন সবাই হয়ত জানে কিন্তু কতটা কঠিন তা প্রতিটা মানুষ তার নিজের জীবন থেকে উপলব্ধি করতে পারে ।।

যে নিজের চোখের জল ফেলে না অথচ ভেতরে ভেতরে রক্তাক্ত হয়, তার কষ্ট সবাই বুঝতে পারে না …

Bengali sad shayari

দুর্বল মানুষরা ক্ষমা করতে পারেনা। ক্ষমা শক্তিশালী মানুষদের গুণ।

কেউ আমার সঙ্গে মিথ্যা বলেছে, এজন্য আমি হতাশ নই।
বরং আমি এ কারণে হতাশ যে, এখন থেকে আমি আর তাকে বিশ্বাস করতে পারব না।

” একাকিত্বের চেয়ে বড় অসুখ সভ্য মানুষের আর নেই।”

“বন্ধুরাও জানে দিব্যি আছি, নিয়ম মাফিক ফিরে আসছি ঠিকানায়
কে বলল একটা মানুষ হারালে আর একটা মানুষ মরে যায়?”

“প্রত্যাখ্যান দিয়েছো যখন
কিছুটা প্রত্যাশা রেখে যাও,
না হলে তোমার কৃষ্ণচুড়াহীন কেটে যাবে ফলন্ত ফাল্গুন।”

______ স্বাস্থ্যসম্মত প্রত্যাখান

সে যদি না জানে, তাতে কার কী!
আমার এ-ই সুখ
আমি ভালবাসি,
সে আমাকে বাসুক বা না বাসুক!

কারুর আসার কথা ছিল না, কেউ আসেনি।
তবু কেন মন খারাপ হয়?

মাঝেমাঝে মানুষ মানুষকে নিজের মনের অজান্তেই উপকার করে বসে, যে উপকারের কথা আপনি নিজে ছাড়া আর কেউ জানে না । আর সেই উপকারের জন্য আপনি কখনই তাকে ধন্যবাদ দিতে পারবেন না । কারন সেই উপকারের কথা সে নিজে ও জানে না আর কোনোদিন জানতে ও পারবে না । কৃতজ্ঞতা প্রকাশ আপনাকে মনে মনেই করতে হবে ।

Sad Shayari in Bengali

কিছু কিছু নাম্বার থেকে,
আর আসবেনা কোন ফোন।
কিছু কিছু এস এম এস পড়ে,
আর হাসবে না এই মন।
কোন কোন ঠিকানায়,
লিখবোনা কোন চিঠি
কোন কোন গলি তে,
করবে না মন হাটা হাঁটি।
কিছু কিছু নাম্বার থেকে,
আর আসবেনা কোন ফোন।

খুঁজবো না আমি খুঁজবেনা এই মন খুঁজবেনা এই চারপাশ
কখনো রঙিন কখনো ধূসর কখনো নীল আকাশ।
জেনেছি আমি জেনেছে মন জেনেছে এই চারপাশ
যাবেনা ফিরানো তবু ফিরানো মিলছে আশ্বাস।
অনেক আড্ডায় অনেক হাঁসিতে হয়না খোঁজা সেই মন
হারানোর বেদনায় পিছে ফেলে সমসাময়িক সুখ।
অনেক একায় অনেক ভিতরকে খুজে ফিরি
একটু দাঁড়া আসছি আমি না হয় হচ্ছে একটু দেরি।..

” প্রত্যেক মানুষই প্রেমে পড়ে, কেউ প্রকাশ করে,কেউবা লুকিয়ে রাখে।”

Sad Shayari in Bengali

সারাক্ষণ তোমাকে মনে পড়ে
তোমাকে সারাক্ষণ মনে পড়ে
মনে পড়ে সারাক্ষণ।
তুমি বলবে আমি ভালোবাসি তোমাকে, তাই।
কিন্তু এর নাম কি ভালোবাসা?
নিতান্তই ভালোবাসা? যে ভালোবাসা হাটে মাঠে না চাইতেই মেলে!
ভালো তো আমি বাসিই কত কাউকে, এরকম তো মরে যাই মরে যাই লাগে না!
এ নিশ্চয় ভালোবাসার চেয়ে বেশি কিছু, বড় কিছু।
তোমার কথাগুলো, হাসিগুলো আমাকে এত উষ্ণ করে তোলে যেন
হিমাগারে শুয়ে থাকা আমি চোখ খুলছি, শ্বাস নিচ্ছি।
বলবে, আমি প্রেমে পড়েছি তোমার।
কিন্তু প্রেমে তো জীবনে আমি কতই পড়েছি,
কই কখনও তো মনে হয়নি কারও শুধু কথা শুনেই, হাসি শুনেই
বাকি জীবন সুখে কাটিয়ে দেব, আর কিছুর দরকার নেই!
এ নিশ্চয়ই প্রেম নয়, এ প্রেম নয়, এ প্রেমের চেয়ে বড় কিছু, বেশি কিছু।

” দুঃখ মানুষের জীবনের একটি ব্যক্তিগত গান,
যা মানুষ নিজে ছাড়া অন্য কেউ শোনে না।

প্রিয় মানুষের মুখে হাসি না ফোটাতে পারার মত ব্যর্থতা বোধহয় আর নেই ।।🙂

“তোমার ফিরে আসার চেয়ে সুন্দর
এই পৃথিবীতে আর কিছু নেই।
বিশ্ব ব্রম্মাণ্ডের সমস্ত সুন্দর জড়ো করলেও
তোমার এক ফিরে আসার সুন্দরের সমান হবে না।”

“তুমি কাউকে ভুলতে পারছো না,
তার মানে সেও তোমাকে ভুলতে
পারছে না।”

মনের মাঝে বাস করে যে জন, তার সাথে খুব কম কথোপকথন হলেও সেই অল্প কথোপকথন গুলোই সারাদিন মুখস্থের মতো মনে হতেই থাকে! মাসে দুই তিন দিনের কথাগুলোই যেনো কথামালায় রুপ নেয় 🌸
শুধু মঙ্গল কামনাই যেনো সবটা হয়ে উঠে তখন 🌼

Read Also: [2020]❤️Best romantic bengali quotes on love for girlfriend SMS special

Bangla Sad shayari
প্রথম প্রেম

প্রথম প্রেম ?
সেটা তো একটা আলাদা অনূভূতির খুব কঠিন এক ডেফিনেশন। প্রথম প্রেম হলো জীবনের খুব বড় একটা দূর্বলতার নাম। প্রথম প্রেমে কখনো অবিশ্বাস থাকেনা। থাকে দুচোখ ভরা বিশ্বাস। থাকে সারাজীবন একসাথে থাকার এক তীব্র ইচ্ছা। আর থাকে একে অপরকে হারিয়ে ফেলার প্রচুর ভয়। প্রথম প্রেমে যা কিছুর অভাব থাকুক না কেন ভালোবাসার কোন কমতি হয় না।

প্রথম প্রেমে এমন কিছু বিষয় থাকে যা পরে মনে পড়লে খুব হাসি পায়। আর তখন আমরা নিজের অজান্তেই মনে মনে বলি ” ইসসস !! কি রকম ছিলাম তখন, প্রথম প্রেম কখনো ভেবে চিন্তে হয়না। এটা ঝড়ের বেগে হঠাত্ করেই জীবনে আসে। আর এমন মানুষের সাথে হয় যা আগে আমরা ভাবতেই পারতাম না। হ্যাঁ প্রথম প্রেমটা এমনই হয়।

আর আর্শ্চযকর ব্যাপার হলো প্রথম প্রেম অনেক বছর পরে এসেও প্রথম প্রেমের মতই থাকে। আমি ভালোবাসার কথা বলতে পারিনা কারন ভালোবাসা একটা আপেক্ষিক বিষয়। তবে সেই মানুষটার প্রতি আমাদের প্রতিটা সুক্ষ্ণ অনূভূতি, আবেগ সব আগের মতোই থাকে। প্রথম প্রেমের কোন স্মৃতি আমরা খুব ইজিলি ভুলিনা। একটা রঙ্গিন ছবির মতো আমাদের মনের মধ্যে থাকে।কিন্তু প্রথম প্রেমের মানুষটাকে সবাই ধরে রাখতে পারেনা, হয়তো কেউ ইম্যাচুয়েরেটির কারনে হারায় , হয়তো কেউ ভুল মানুষের প্রেমে পড়ে বলে হারায় আবার কেউ পরিবারের ঝামেলার কারনে হারায়, আবার কেউ বা ইচ্ছে করে চলে যায়। হয়ত আবগের বসে অন্য কারো কথায় নয়ত ইগোর কারনে। আবার অনেকে কেন যায় সে নিজেই জানেনা। তারপর আবার কারো করো ” সব আগের মতো ঠিক হয়ে যাবে, আমরা একসাথেই থাকবো। এই একটা কথা মনের মধ্যে ধরে রেখে শুরু হয় অপেক্ষার প্রহর!! তবে যারা টিকিয়ে রাখতে পারে তারা ভাগ্যবান। আর যারা পারেনা তারা প্রথম প্রেমের প্রথম মানুষটির জন্যে গোপনে কাঁদে। কেউবা ফিরে আসতে চেয়েও পারেনা। তার কারন হল- সে কি জানি ভাববে আমায়? এসব ভেবে। যে চলে যায় সে হয়ত জানেনা তার প্রথম মানুষটি তার জন্যে কত আগ্রহ নিয়ে অপেক্ষায় থাকে। সর্বোপরি প্রথম প্রেম মানুষের জীবনকে অনেকটা পাল্টে দেয়। হাসিয়ে রাখে, মাতিয়ে রাখে নিজেকে।

প্রেমে কখনো দুই চার বার পড়া যায় না ।। প্রেমে মানুষ একবারই পড়ে আর সেটা হলো প্রথমবার।

ভালো থাকুক সকলের ভালোবাসার মানুষগুলো।
টিকে থাকুক সকলের প্রথম প্রেম, প্রথম ভালোবাসা।

Read Also: Attitude quotes in english

Sad Shayari in Bengali

কাছে যাওয়া বড্ড বেশি হবে, এই এখানে দাড়িয়ে থাকাই ভালো,
তোমার ঘরে থমকে আছে দুপুর, বারান্দাতে বিকেল পড়ে এলো !

পোড়াতে তো আমিও জানি, কিন্তু যার কাছে হৃদয় রেখেছি,
তাকে কি করে পোড়াবো ?

ডাকো নাই তবু ফিরে আসি বারবার
দেখে নিও একদিন ফিরবো না আর!

বসন্ত নয়,
আমার দরজায় প্রথম কড়া নেড়েছিল অবহেলা
ভেবেছিলাম অনেক গুলো বর্ষা শেষে
শরৎ এর উষ্ণতা মিশে এ এলো বুঝি বসন্ত
দরোজা খুলে দেখি আমাকে ভালোবেসে এসেছে অবহেলা
মধ্য দুপুরের তির্যক রোদের মতো
অনেকটা নির্লজ্জ ভাবে আমাকে আলিঙ্গন করে নিয়েছিলো অনাকাঙ্ক্ষিত অবহেলা
আমি চারপাশে তাকিয়ে দেখেছিলাম
আমার দীনদশায় কারো করুণা বা আর্তিব পেখম ছড়িয়ে আছে কিনা
ছিলো না …।

আমি যাকে আঁকড়ে ধরতে চেয়েছি,
সে আমাকে ফেলে চলে গেছে।

তোমার জন্য সকাল, দুপুর তোমার জন্য সন্ধ্যা তোমার জন্য সকল গোলাপ এবং রজনীগন্ধা ।।

ঈশ্বর, তুমি সযতনে রেখো তাকে
সে বড় অভিমানী, চাপা বুকে
ফিরে গেছে রোদ নেভার আগেই..
ঈশ্বর, আজও অনুতাপে ধুকছে সব
বোবা হাহাকারে চোখ নীরব
বলা হয়ে ওঠেনি তাকেই –
বিদায়.. বিদায়……

Sad Shayari in Bengali

মেয়েমানুষের এরকম হয়, ওরকম হয়, সব রকম হয়, শুধু মনের মত হয় না।

ছেলেদের জন্য পৃথিবীতে সব চাইতে মূল্যবান হল মেয়েদের হাসি

মেয়েদের চোঁখে দুই রকমের অশ্রু থাকে, একটি দুঃখের অপরটি ছলনার

তরুণী মেয়েদের হঠাৎ আসা আবেগ হঠাৎ চলে যায়। আবেগকে বাতাস না দিলেই হলো। আবেগ বায়বীয় ব্যাপার, বাতাস পেলেই তা বাড়ে। অন্য কিছুতে বাড়ে না।

সময়ের হাত ধরে নতুন স্মৃতি এলে
আমি থাকব পথ চেয়ে ছদ্মবেশে …

সম্পর্ক বন্ধুত্তের হোক বা ভালোবাসার !..
টিকিয়ে রাখার দায়িত্ব দুজনেই !‍..

মনের দূরত্ব বেড়ে গেলে পাশাপাশি চেয়ারে বসেও তাকে প্রয়োজনীয় মানুষ বলে মনে হয় না ।

Bengali sad love shyari
প্রেম

প্রেম
– তসলিমা নাসরিন

যদি আমাকে কাজল পড়তে হয় তোমার জন্য,
চুলে মুখে রঙ মাখতে হয়,
গায়ে সুগন্ধি ছিটাতে হয়,
সবচেয়ে ভালো শাড়িটা যদি পরতে হয়,
শুধু তুমি দেখবে বলে মালাটা চুড়িটা পরে সাজতে হয়,
যদি তলপেটের মেদ,
যদি গলার বা চোখের কিনারের ভাঁজ
কায়দা করে লুকোতে হয়,
তবে তোমার সঙ্গে অন্য কিছু, প্রেম নয় আমার।
প্রেম হলে আমার যা কিছু এলোমেলো
যা কিছু খুঁত, যা কিছুই ভুলভাল,
অসুন্দর থাক, সামনে দাঁড়াবো,
তুমি ভালোবাসবে।
কে বলেছে প্রেম খুব সহজ, চাইলেই হয়!
এতো যে পুরুষ দেখি চারদিকে,
কই, প্রেমিক তো দেখিনা !

যদি ভুলে যাবার হয়, ভুলে যাও।
দূরে বসে বসে মোবাইলে, ইমেইলে হঠাৎ হঠাৎ জ্বালিয়ো না,
দূরে বসে বসে নীরবতার বরফ ছুড়ে ছুড়ে এভাবে বিরক্তও করো না।

ভুলে গেলে এইটুকু অন্তত বুঝবো ভুলে গেছো,
ভুলে গেলে পা কামড়ে রাখা জুতোগুলো খুলে একটু খালি পায়ে হাঁটবো,
ভুলে গেলে অপেক্ষার কাপড়চোপড় খুলে একটু স্নান করবো,
ভুলে গেলে পুরোনো গানগুলো আবার বাজাবো,
ভুলে গেলে সবগুলো জানালা খুলে একটু এলোমেলো শোবো।
রোদ বা জোৎস্না এসে শরীরময় লুকোচুরি খেলে খেলুক, আমি না হয় ঘুমোবো,

ঘুমোবো ঘুমোবো করেও নিশ্চিন্তের একটুখানি ঘুম ঘুমোতে পারিনা কত দীর্ঘদিন!
কেবল অপেক্ষায় গেছে। না ঘুমিয়ে গেছে। জানালায় দাঁড়িয়ে গেছে।

কেউ আমাকে মনে রাখছে, কেউ আমাকে মনে মনে খুব চাইছে, সমস্তটা চাইছে,
কেউ দিনে রাতে যে কোনও সময় দরজায় কড়া নাড়বে,
সামনে তখন দাঁড়াতে হবে নিখুঁত, যেন চুল, যেন মুখ, যেন চোখ, ঠোঁট,
যেন বুক, চিবুক এইমাত্র জন্মেছে, কোথাও ভাঙেনি, আঁচড় লাগেনি, ধুলোবালি ছোঁয়নি।
হাসতে হবে রূপকথার রাজকন্যার মতো,
তার ক্ষিধে পায় যদি, চায়ের তৃষ্ঞা পায় যদি!
সবকিছু হাতের কাছে রাখতে হবে নিখুঁত!
ভালোবাসতে হবে নিখুঁত!
নিমগ্ন হতে হবে নিখুঁত!
ক্ষুদ্র হতে হবে নিখুঁত!
দুঃস্বপ্নকে কত কাল সুখ নামে ডেকে ডেকে নিজেকে ভুলিয়েছি!

ভুলে যেতে হলে ভুলে যাও, বাঁচি।
যত মনে রাখবে, যত চাইবে আমাকে, যত কাছে আসবে,
যত বলবে ভালোবাসো, তত আমি বন্দি হতে থাকবো তোমার হৃদয়ে, তোমার জালে,
তোমার পায়ের তলায়, তোমার হাতের মুঠোয়, তোমার দশনখে।

ভুলে যাও, মুখের রংচংগুলো ধুয়ে একটু হালকা হই, একটুখানি আমি হই!!

—– তসলিমা নাসরিন।

সমস্যা হচ্ছে গোটা পৃথিবীতে যে একটা মানুষের কেয়ারের জন্য আপনি সবচেয়ে বেশি অপেক্ষা করেন,সেই মানুষটা আপনার জন্য চিন্তাও করে না ..

পৃথিবীর সবচেয়ে সুন্দর দৃশ্য হলো,কাউকে হাসতে দেখা। তার চেয়েও ভালো লাগবে, যদি আমি জানতে পারি, আমার কারণেই একজনের মুখে হাসি ফুটে উঠেছে।

Sad Shayari in Bengali

ভালবাসি, ভালবাসি
—সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়
ধরো কাল তোমার পরীক্ষা,রাত জেগে পড়ার
টেবিলে বসে আছ,
ঘুম আসছে না তোমার
হঠাত করে ভয়ার্ত কন্ঠে উঠে আমি বললাম-
ভালবাস? তুমি কি রাগ করবে?
নাকি উঠে এসে জড়িয়ে ধরে বলবে,
ভালবাসি, ভালবাসি..
ধরো ক্লান্ত তুমি, অফিস থেকে সবে ফিরেছ,
ক্ষুধার্ত তৃষ্ণার্ত পীড়িত..
খাওয়ার টেবিলে কিছুই তৈরি নেই,
রান্নাঘর থেকে বেরিয়ে ঘর্মাক্ত আমি তোমার
হাত ধরে যদি বলি- ভালবাস?
তুমি কি বিরক্ত হবে?
নাকি আমার হাতে আরেকটু
চাপ দিয়ে বলবে
ভালবাসি, ভালবাসি..
ধরো দুজনে শুয়ে আছি পাশাপাশি,
সবেমাত্র ঘুমিয়েছ তুমি
দুঃস্বপ্ন দেখে আমি জেগে উঠলাম শশব্যস্ত
হয়ে তোমাকে ডাক দিয়ে যদি বলি-ভালবাস?
তুমি কি পাশ ফিরে শুয়ে থাকবে?
নাকি হেসে উঠে বলবে
ভালবাসি, ভালবাসি..
ধরো রাস্তা দিয়ে হেঁটে যাচ্ছি দুজনে,মাথার উপর
তপ্ত রোদ,বাহন
পাওয়া যাচ্ছেনা এমন সময় হঠাত দাঁড়িয়ে পথ
রোধ করে যদি বলি-ভালবাস?
তুমি কি হাত সরিয়ে দেবে?
নাকি রাস্তার সবার দিকে তাকিয়ে কাঁধে হাত
দিয়ে বলবে
ভালবাসি, ভালবাসি..
ধরো শেভ করছ তুমি,গাল কেটে রক্ত পড়ছে,এমন সময়
তোমার এক ফোঁটা রক্ত হাতে নিয়ে যদি বলি-
ভালবাস?
তুমি কি বকা দেবে?
নাকি জড়িয়ে তোমার গালের রক্ত আমার
গালে লাগিয়ে দিয়ে খুশিয়াল
গলায় বলবে
ভালবাসি, ভালবাসি..
ধরো খুব অসুস্থ তুমি,জ্বরে কপাল পুড়ে যায়,
মুখে নেই রুচি, নেই কথা বলার
অনুভুতি,
এমন সময় মাথায় পানি দিতে দিতে তোমার
মুখের
দিকে তাকিয়ে যদি বলি-ভালবাস?
তুমি কি চুপ করে থাকবে?নাকি তোমার গরম
শ্বাস আমার
শ্বাসে বইয়ে দিয়ে বলবে ভালবাসি, ভালবাসি..
ধরো যুদ্ধের দামামা বাজছে ঘরে ঘরে,প্রচন্ড
যুদ্ধে তুমিও অঃশীদার,
শত্রুবাহিনী ঘিরে ফেলেছে ঘর
এমন সময় পাশে বসে পাগলিনী আমি তোমায়
জিজ্ঞেস করলাম-
ভালবাস? ক্রুদ্ধস্বরে তুমি কি বলবে যাও?
নাকি চিন্তিত আমায় আশ্বাস
দেবে,বলবে
ভালবাসি, ভালবাসি..
ধরো দূরে কোথাও যাচ্ছ
তুমি,দেরি হয়ে যাচ্ছে,বেরুতে যাবে,হঠাত
বাধা দিয়ে বললাম-ভালবাস? কটাক্ষ করবে?
নাকি সুটকেস ফেলে চুলে হাত
বুলাতে বুলাতে বলবে
ভালবাসি, ভালবাসি
ধরো প্রচন্ড ঝড়,উড়ে গেছে ঘরবাড়ি,আশ্রয় নেই
বিধাতার দান এই
পৃথিবীতে,বাস করছি দুজনে চিন্তিত তুমি
এমন সময় তোমার
বুকে মাথা রেখে যদি বলি ভালবাস?
তুমি কি সরিয়ে দেবে?
নাকি আমার মাথায় হাত রেখে বলবে
ভালবাসি, ভালবাসি..
ধরো সব ছেড়ে চলে গেছ কত দুরে,
আড়াই হাত মাটির নিচে শুয়ে আছ
হতভম্ব আমি যদি চিতকার করে বলি-ভালবাস?
চুপ করে থাকবে?নাকি সেখান থেকেই
আমাকে বলবে ভালবাসি, ভালবাসি..
যেখানেই যাও,যেভাবেই থাক,না থাকলেও দূর
থেকে ধ্বনি তুলো
ভালবাসি, ভালবাসি, ভালবাসি..
দূর থেকে শুনব তোমার কন্ঠস্বর,বুঝব
তুমি আছ,তুমি আছ
ভালবাসি, ভালবাসি….

“একখণ্ড বিশাল মেঘ চাঁদটিকে ঢেকে দিয়েছে।চাঁদের আলো এখন আর চোখে লাগছে না। চারদিক কি সুন্দর লাগছে। কী অসহ্য সুন্দর। হতাশা, গ্লানি, দুঃখ ও বঞ্চনার পৃথিবীকে এত সুন্দর করে বানানোর কী প্রয়োজন ছিল কে জানে”

“তোমার শূন্য পথের দিকে তাকাতে তাকাতে
দুই চোখ অন্ধ হয়ে গেলো,
সব নদীপথ বন্ধ হলো, তোমার সময় হলো না –
আজ সারাদিন বিষাদপর্ব,সারাদিন তুষারপাত…
মন ভালো নেই, মন ভালো নেই”

সবটুকু আরোগ্য ছুঁয়ে আছে আমার অসুখ।
সে একবার এসে ডাক দিয়ে যাক,
একবার ভালোবাসুক।

“যত্ন করে কাঁদানোর জন্য খুব আপন মানুষগুলোই যথেষ্ট”

Sad Shayari in Bengali

দুনিয়াতে খুব অল্প কিছু মানুষ আছে, যারা আসলেই আলাদা, সারা জীবনেও তারা কারও আপন হতে পারে না, তাদের কেউই বুঝে না, তাদের সব থেকেও আসলে শূন্যতা ছাড়া কিছুই থাকে না, তারা একা আসে, একা ঘুরে, একাই থাকে, একাই চলে যায়!

মানুষ যখন কোন কারণে কারো দ্বারা কষ্ট পায়, মনে হয় তখন থেকেই সে নিষ্ঠুর হতে শিখে। কষ্টই হলো নিষ্ঠুর হওয়ার অন্যতম কারণ।

শ্রাবন ধারায় এত চেনা কি খুঁজে পাও?
যা আমার মাঝে নেই এক বিন্দু পরিমাণ,
আমার সরল রেখার চিন্তা ধারায়,
আরারি করে দাগ কাট কেন
নাকি কাদিয়ে আমাকে সেই, চোখের জল এই ভেজ
তৃষ্ণার্ত হৃদয় এ শুধু আমি মরিচিকার মত.

তবে তাই যদি হয় করি নাকো ভয়
জানি আধার রাত ঘনিয়ে হবে সূর্যোদয় আমি ভেবে নিলাম তুমি সে লাল গোলাপ যারে নিরন্তর পাহারা দেয় এক কাটার বাগান.

পাহাড় চুড়ায় বেয়ে আকাশ তো ছুতে দেখিনি স্রোতস্বিনীর হাওয়ায় পারি দাও সমুদ্দুর
আছড়ে পরে সে ঢেউ আমার বুকে,
দুরন্ত বেগে
নাকি কাদিয়ে আমাকে সেই চখের জল এই ভেজ
তৃষ্ণার্ত হৃদয় এ শুধু আমি মরিচিকার মত!

তবে তাই যদি হয় করি নাক ভয়
জানি আধার রাত ঘনিয়ে হবে সূর্যোদয়
আমি ভেবে নিলাম তুমি সেই লাল গোলাপ যারে নিরন্তর পাহারা দেয় এক কাটার বাগান.

প্রত্যেক নতুন জিনিসকেই উৎকৃষ্ট মনে হয়। কিন্তু, বন্ধুত্ব যতই পুরাতন হয়, ততই উৎকৃষ্ট ও দৃঢ় হয়।

“মানুষের এটাই সব চে’ বড়ো দোষ মানুষ তার না পাওয়া গুলোকে খুব বেশি করে যত্ন করে, আর পাওয়া গুলোকে অবহেলা করে দূর করে দেয়, হারিয়ে ফেলে।”

“বিষাদ ছুঁয়েছে আজ, মন ভালো নেই,
মন ভালো নেই;
ফাঁকা রাস্তা, শূন্য বারান্দা
সারাদিন ডাকি সাড়া নেই,
একবার ফিরেও চায় না কেউ
পথ ভুলকরে চলে যায়, এদিকে আসে না
আমি কি সহস্র সহস্র বর্ষ এভাবে
তাকিয়ে থাকবো শূন্যতার দিকে?”

‘অভিমান হল হৃদয়ের অতি গোপন প্রকোষ্ঠের ব্যাপার।
যে কেউ সেখানে হাত ছোঁয়াতে পারে না!’

Sad Shayari in Bengali

ভুল ভেঙে গেলে ডাক দিও;
আমি মৃত্যুর আলিঙ্গন ফেলে আত্মমগ্ন আগুন
ললাটের সৌমতায় লিখে দেবো;
এক খানা প্রিয় নাম – “ভালোবাসা”

“প্রতি সন্ধ্যেবেলা আমার বুকের মধ্যে হাওয়া ঘুরে ওঠে, হৃদয়কে অবহেলা করে রক্ত;
আমি মানুষের পায়ের কাছে কুকুর হয়ে বসে থাকি-তার ভেতরের কুকুরটাকে দেখবো বলে”

যখন রাত আসে তখন ঘুম আসে,
যখন ঘুম আসে তখন স্বপ্ন আসে,
যখন স্বপ্ন আসে তখন তুমি আসো,
যখন তুমি আসো তখন ঘুমও আসে না, স্বপ্নও আসে না।

হারিয়ে যাওয়া অত সহজ নয়।
তার জন্যও একটা রাস্তা দরকার।

ভালবাসার মানুষ গুলা ,
এক সময়, ভালবাসা না পেলে,
তাদের মনটাই মরে যায়, কারণ,
তার মনটা যে দিয়ে দিয়েছে অন্য,
এক জনকে,

ভালোবাসার ব্যাপারে পুরুষরা চিরকালই শিকার, আর মেয়েরা শিকারী। একজন শিকারী যেমন শিকারের জন্য তার বন্দুককে ভালোবাসে, একজন মেয়ে মানুষও তেমনি সৃষ্টির প্রয়োজনে পুরুষকে ভালোবাসে। এ ভালোবাসা বন্দুকের প্রতি শিকারীর প্রেম ভালোবাসার সঙ্গেই একমাত্র তুলনীয়।

যখন কোনো পুরুষ কোনো নারীকে ভালোবাসে,
তখন সে তার জন্য সব কিছু করতে পারে।
কেবল তাকে ভালোবেসে যেতে পারেনা।

আমি বলছি না ভালোবাসতেই হবে , আমি চাই কেউ একজন আমার জন্য অপেক্ষা করুক,
শুধু ঘরের ভেতর থেকে দরজা খুলে দেবার জন্য ।
বাইরে থেকে দরজা খুলতে খুলতে আমি এখন ক্লান্ত ।

আমি বলছি না ভালোবাসতেই হবে, আমি চাই কেউ আমাকে খেতে দিক । আমি হাতপাখা নিয়ে কাউকে আমার পাশে বসে থাকতে বলছি না,
আমি জানি, এই ইলেকট্রিকের যুগ
নারীকে মুক্তি দিয়েছে স্বামী -সেবার দায় থেকে ।

আমি চাই কেউ একজন জিজ্ঞেস করুক :
আমার জল লাগবে কি না, নুন লাগবে কি না,
পাটশাক ভাজার সঙ্গে আরও একটা
তেলে ভাজা শুকনো মরিচ লাগবে কি না ।
এঁটো বাসন, গেঞ্জি-রুমাল আমি নিজেই ধুতে পারি ।

আমি বলছি না ভলোবাসতেই হবে, আমি চাই কেউ একজন ভিতর থেকে আমার ঘরের দরজা খুলে দিক । কেউ আমাকে কিছু খেতে বলুক ।
কাম-বাসনার সঙ্গী না হোক, কেউ অন্তত আমাকে জিজ্ঞেস করুক : ‘তোমার চোখ এতো লাল কেন ?’

– তোমার চোখ এতো লাল কেন?
– নির্মলেন্দু গুণ

Read Also: Whatsapp dp images

আপনার জন্য আরও কিছু মজাদার পোস্ট

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.