গুগল পে ও অন্যান্য ডিজিটাল ওয়ালেট হ্যাক হচ্ছে কীভাবে? | Google Pay, Paytm Hacks: Here’s How They Do It

গুগল পে ও অন্যান্য ডিজিটাল ওয়ালেট হ্যাক হচ্ছে কীভাবে?

শুরুতেই হ্যাকাররা আপনার স্মার্টফোনের রিমোট অ্যাকসেস নেওয়ার চেষ্টা করছে। রিমোট অ্যাকসেসের মাধ্যমে ঘরে বসেই আপনার স্মার্টফোনের দখল নেওয়া সম্ভব। গুগল পে ও অন্যান্য ডিজিটাল পেমেন্ট সার্ভিসে সরক্ষিত থাকার উপায় দেখে নিন।

শুরুতেই Anydesk অথবা TeamViewer এর মতো রিমোট অ্যাকসেস অ্যাপ ইনস্টল করতে বলা হবে। প্লে স্টোর ও অ্যাপ স্টোর থেকে এই অ্যাপগুলি ডাউনলোড করা যাবে। এই অ্যাপ ব্যবহার করে অন্য গ্রাহকের মোবাইলে রিমোট অ্যাকসেস নেওয়া সম্ভব।

এই ধরনের অ্যাপ ইন্সটল করার পরে অ্যাপ থেকে একটি কোড জেনারেট হয়। সেই কোড জানতে চাওয়া হয়।

সঙ্গে থাকে একটি পাসওয়ার্ড। এই কোড ও পাসওয়ার্ড দিয়ে স্মার্টফোনের রিমোট অ্যাকসেস নেওয়া যাবে। এর পরে গ্রাহককে এই অ্যাপ ব্যবহারের অনুমতিতে সম্মতি দিতে হবে।

সম্মতির পরেই আপনার মোবাইলের দখল নেবে সেই হ্যাকার।

এই উপায়ে প্রতারকরা স্মার্টফোনের দখল নিয়ে ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট খালি করার কাজ চালিয়ে যাচ্ছে।

সম্প্রতি ভারতের গ্রাহকদের জন্য একগুচ্ছ নতুন সুবিধা নিয়ে এসেছে গুগল। ভারতে সেই গুগল ইভেন্ট থেকেই গুগল পে পেমেন্ট সার্ভিস নতুন ফিচার নিয়ে এল সার্চ ইঞ্জিন কোম্পানিটি। এতদিন গুগল পে থেকে শুধুমাত্র ইউপিআই পদ্ধতিতে বিল পেমেন্ট করা যেত। এবার ডেবিট ও ক্রেট কার্ড ব্যবহার করেও গুগল পে থেকে বিল পেমেন্ট করা যাবে।

তবে বিল পেমেন্টের সময় ভেন্ডরকে কার্ড নম্বর দেবে না গুগল। পরিবর্তে একটি টোকেন নম্বর ব্যবহার হবে। আগামী কয়েক সপ্তাহের মধ্যেই ভিসা অ্যাক্সিস ব্যাঙ্ক কার্ড, এইচডিএফসি কার্ড, স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড ব্যাঙ্ক আর স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া ডেবিট ও ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করে গুগল পে থেকে বিল পেমেন্ট করা যাবে। কয়েক দিনের মধ্যেই রু পে ও মাস্টার কার্ড ডেবিট ও ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করে বিল পেমেন্ট করা যাবে।

অনলাইনে বিল পেমেন্ট ছাড়াও অফলাইন স্টোরে এনএফসি আর কিউআর কোড ব্যবহার করে ক্রেডিট ও ডেবিট কার্ড ব্যবহার করে পেমেন্ট করা যাবে।

আপনার জন্য আরও কিছু মজাদার পোস্ট

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.